আপনার থেকে এরকম ইমম্যাচিউর আচরন আশা করা যায় না: অনন্তকে পরী

এবারের ঈদুল আজহায় মুক্তি পেয়েছে তিনটি সিনেমা। এর মধ্যে রয়েছে অনন্ত জলিলের ‘দিন : দ্য ডে’, নির্মাতা রায়হান রাফির ‘পরাণ’ ও অনন্য মামুনের ‘সাইকো’। সিনেমাগুলো মুক্তির পর থেকেই এক ধরণের প্রতিযোগীতা ও কথার লড়াই চোখে পড়েছে এই তিন সিনেমা সংশ্লিষ্ট নিমার্তা ও কলাকৌশলীদের মাঝে।

রোববার ঈদুল আযহার প্রথম দিন দেশের সর্বাধিক প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পেয়েছে এই তিন সিনেমা। এরপর থেকেই নিজেদের সিনেমার প্রচারে ব্যস্ত হয়ে পড়েছেন নির্মাতা-তারকারা। তবে সেই প্রচার শুধু প্রচারেই সীমাবদ্ধ থাকেনি। প্রচারে নেমে কথার লড়াইয়ে জড়িয়েছেন অনন্ত জলিল, বর্ষা, অনন্য মামুনরা।

বিশেষ করে ‘দিন : দ্য ডে’ সিনেমা নিয়ে বেশ বিস্ফোরক কিছু মন্তব্যই করতে দেখা গেছে অনন্ত-বর্ষা জুটিকে। কয়েকদিন আগেই ‘সাইকো’ ছবির পরিচালক অনন্য মামুনকে সামনে পেলে কান ধরে উঠবস করাবেন বলে মন্তব্য করেছিলেন অনন্ত জলিল। এরই মাঝে অনন্ত জলিলের সব সিনেমাতে কেন তাকে নায়িকা নেওয়া হয়, এমন প্রশ্নে অনন্তপত্নী বর্ষা বলেছেন, ‘কী টাইপের নায়িকা আপনাদের পছন্দ? সেই নায়িকা পছন্দ- যারা পেটে সন্তান নিয়ে কিংবা সন্তান প্রসব করে হাইডে (আড়ালে) থাকে? নাকি যারা হিরোইন, ফেনসিডিল, মদ, গাঁজা নিয়ে ধরা পড়ে পুলিশের হেফাজতে থাকে? যেসব নায়িকা বিয়ের শাড়িটাও স্পন্সর নিয়ে পরে তাদের পছন্দ? তাদেরকে অনন্ত জলিলের সঙ্গে মানাবে? আমি সেই গ্রেডের নায়িকা না। আমি আমার জায়গায় আছি।’

অনেকেই মনে করেছেন এই উত্তরটা তিনি পরাণ সিনেমার নায়ক রাজের স্ত্রী পরীকে উদ্দেশ্য করেই দিয়েছেন। কারণ রোজই রাজের পরাণ সিনেমা ও স্বামীকে ঘিরে মজার মজার পোস্ট করছেন এই পরী। বলছেন, ‘১০ দিন দেরি করে ইনি আমাকে ডক্টর চেকআপে নিয়ে গেলেন আজ! কী করা উচিত? যাও ‘পরাণ’-এর বাজিমাতের জন্যে মাফ করে দিলাম।’’ এটাও লিখলেন, ‘আমার পরাণটা, দিলা তো সব কাঁপায়ে।’ আবার বিপরীতে রাজের কাছ থেকেও সোশ্যাল হ্যান্ডেলে মিলছে স্ত্রীকে ঘিরে দারুণ সব প্রতিউত্তর, ‘তোমাকে নিয়ে ‘পরাণ’ দেখবো বলেছিলাম প্রথম সপ্তাহে, নিজেই টিকিট পাচ্ছি না মাই ডিয়ার ওয়াইফ। সো নেক্সট উইক।’

তবে এরই মাঝে অনন্ত জলিলের ভেরিফায়েড পেজে শেয়ার করা একটি খবরের লিঙ্ক দেখে কষ্ট পেয়েছেন তিনি। অনন্ত জলিলের সেই পোস্টটির স্ক্রিনশট নিজের ওয়ালে শেয়ার করে পরীমণি লিখেছেন, ‘‘লেইম! আপনার থেকে এ রকম ইমম্যাচিউর আচরণ আশা করা যায় না ভাইয়া! আমরা তো বড়দের কাছ থেকে শিখতে চাই। যাই হোক, আমি রাজকে নিয়ে ‘দিন দ্য ডে’ দেখবো। শুভ কামনা বর্ষা আপু,অনন্ত জলিল ভাইয়া।’’

পরীর শেয়ার করা স্ক্রিনশটের খবরটি ছিলো এমন, ‘হলে পরাণের দর্শক নাই, সবই সোশ্যাল মিডিয়ার ফাঁকা আওয়াজ’।